ডেস্ক রিপোর্টার, আগরতলা।।
রাজ্য সরকারের কর্মচারি ও অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারিদের ৫ শতাংশ মহার্ঘভাতা প্রদান করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার। মঙ্গলবার রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে সচিবালয়ের প্রেস কনফারেন্স হলে সাংবাদিক বৈঠকে একথা জানিয়েছেন রাজ্যের তথ্য ও সংস্কৃতি দপ্তরের মন্ত্রী সুশান্ত চৌধুরী । ঘোষিত এই মহার্ঘভাতা চলতি বছরের১লা জুলাই থেকে কার্যকর হবে । এই ৫ শতাংশ মহার্ঘভাতা দিতে গিয়ে প্রতিবছর রাজ্য সরকারের ব্যয় হবে ৫২৩ কোটি ৮০ লক্ষ টাকা ।
তথ্য ও সংস্কৃতি মন্ত্রী জানান , স্থির বেতনের কর্মচারিরাও এই সুবিধা পাবেন । রাজ্য সরকারের এই বলিষ্ঠ সিদ্ধান্তের ফলে বিশাল সংখ্যক সরকারি কর্মচারি এবং অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারি সমাজ উপকৃত হবে ।
সাংবাদিক সম্মেলনে তথ্য ও সংস্কৃতি মন্ত্রী জানিয়েছেন, এদিনের মন্ত্রিসভার বৈঠকে পূর্ত দপ্তরে ২০০ জুনিয়র ইঞ্জিনিয়ার নিয়োগের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে । এর মধ্যে ১০০ জন ত্রিপুরা ইঞ্জিনিয়ারিং সার্ভিস গ্রেড- v ( A ) এবং ১০০ জন গ্রেড- v ( B ) জুনিয়র ইঞ্জিনিয়ার নিয়োগ করা হবে । শীঘ্রই টিপিএসসি’র মাধ্যমে নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হবে ।
মন্ত্রী সুশান্ত চৌধুরীর কথায়, মন্ত্রিসভায় সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ দপ্তরে ১০০ জন স্টাফ নার্স নিয়োগ করা হবে । পাশাপাশি স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ দপ্তরের অধীনে ২২ টি ফার্মাসিস্ট ( হোমিওপ্যাথি ) , ২৫ টি ফার্মাসিস্ট ( আয়ুর্বেদিক ) এবং ৩৯ টি ল্যাবোরেটরি টেকনিসিয়ান ( ব্লাড ) পদে লোক নিয়োগেরও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তাছাড়াও মন্ত্রিসভায় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ দপ্তরে মাল্টিপারপাস সুপারভাইজার প্রোমোশনাল পদ সৃষ্টি করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে । স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ দপ্তরের রিপসেট – এ বিভিন্ন বিভাগে ৪ টি সহকারী অধ্যাপক পদে নিয়োগের সিদ্ধান্তও অনুমোদিত হয়েছে মন্ত্রিসভায় । স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ দপ্তরে ২৫ টি সুপারনিউমেরারি পদ সৃষ্টি করার সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়েছে । এক্ষেত্রে যারা গ্রেড- IV এ রয়েছেন তাদের গ্রেড -III ড্রাইভার পদে উন্নীত করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে । সাংবাদিক সম্মেলনে তথ্য ও সংস্কৃতি মন্ত্রী জানান , মন্ত্রিসভার বৈঠকে অর্থ দপ্তরের অন্তর্গত ডিরেক্টরেট অব অডিটে স্থির বেতনে ১২ টি এলডিসি পদ সৃষ্টি করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।এছাড়া তথ্য ও সংস্কৃতি দপ্তরে ১৬ টি পদ সৃষ্টি করা হয়েছে । এর মধ্যে ৪টি সহকারি অধিকর্তা , ৬টি সিনিয়র ইনফরমেশন অফিসার এবং ৬টি রিপোর্টারের পদ সৃষ্টি করা হয়েছে। ৪টি সহকারি অধিকর্তা এবং ৬টি সিনিয়র ইনফরমেশন অফিসারের পদ প্রোমোশনের মাধ্যমে পূরণ করা হবে এবং রিপোর্টার পদে সরাসরি নিয়োগের মাধ্যমে পূরণ হবে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.