ধর্মনগর ডেস্ক,৬মে।
“২৩১ কোটি রেগার কেলেঙ্কারির দুর্নীতির রহস্য উন্মোচন করতে হাইকোর্টের বিচারপতি দিয়ে তদন্ত কমিশন গঠনের দাবি করছে তৃণমূল কংগ্রেস।”—ধর্মনগরে অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ মিছিলে একথা বলেছেন প্রদেশ তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি সুবল ভৌমিক।শুক্রবার ধর্মনগরে তৃণমূল কংগ্রেসের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হয়েছিলো এই প্রতিবাদ মিছিল।
আনুষ্ঠানিক ভাবে রাজ্য সভাপতির দায়িত্ব নিয়ে সুবল ভৌমিক উত্তর ও ঊনকোটি জেলায় বেরিয়ে পড়েছেন। দুই জেলার বিভিন্ন জায়গাতে রাজ্য সরকারের বিভিন্ন দুর্নীতি নিয়ে সরব হচ্ছে তৃণমূল। শুক্রবার ধর্মনগরে প্রতিবাদ মিছিল করে ঘাসফুল শিবির। ধর্মনগরে তৃণমূল কার্যালয় থেকে মিছিল বের হয়ে শহরের বিভিন্ন পথ পরিক্রমা করে।এবং পুনরায় দলীয় কার্যালয়ে এসেই শেষ হয় মিছিল।
মিছিলে দাঁড়িয়ে গর্জে উঠেন তৃণমূল কংগ্রেসের প্রদেশ সভাপতি সুবল ভৌমিক।তিনি বলেন, বিজেপি সরকারের জামানায় বিভিন্ন সরকারি দপ্তরে চলছে সীমাহীন দুর্নীতি। রেগাতে কেলেঙ্কারির পরিমান ২৩১কোটি। রেগার শ্রমিকদের মজুরি থেকে ১০থেকে ২০টাকা করে রেখে দেওয়া হয়েছে। সোশ্যাল এডিটে এই কেলেঙ্কারি প্রমাণিত হয়েছে। সুবলের কথায়, কেলেঙ্কারি উন্মোচন করতে তদন্ত কমিশন গঠনের দাবি করছে তৃণামূল কংগ্রেস।
বিজেপিকে তীব্র ভাষায় আক্রমণ করে সুবল ভৌমিক বলেন, “রাজ্যের বিপ্লব দেবের সরকার দুর্বৃত্তদের সরকার। স্বৈরাচারী সরকার,জন বিরোধী সরকার।রাজ্যের মানুষ এখন এই সরকার থেকে মুক্তি চাইছে।”লাগাতর পেট্রোপণ্য সহ নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রীর লাগামহীন মূল্যবৃদ্ধি নিয়েও এদিন প্রতিবাদ মিছিলে সরব হয়েছিলো তৃণমূল। সুবল ভৌমিক ছাড়াও এদিন পান্না দেব, বাছিত খান সহ অন্যান্য নেতৃত্ব উপস্থিত ছিলেন মিছিলে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.