ডেস্ক রিপোর্টার,৬ আগষ্ট।।
“খুব শীঘ্রই আগরতলার সঙ্গে জম্মু ও কাশ্মীরের সরাসরি ট্রেন পরিষেবা চালু হবে।তার জন্য উদ্যোগ নিয়েছে রাজ্য সরকার।তাছাড়াও আগরতলা-মুম্বাই ও আগরতলা-গুয়াহাটি এক্সপ্রেস ট্রেন চালুর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।এই সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে আলোচনা চলছে রেল মন্ত্রকের সঙ্গে।” বলেছেন রাজ্যের পরিবহন মন্ত্রী প্রণজিৎ সিংহ রায়। শুক্রবার সন্ধ্যায় আগরতলা রেল স্টেশনে আগরতলা – দেওঘর অতিরিক্ত ট্রেন যাত্রার সূচনা করে একথা বলেছেন তিনি।
পরিবহন মন্ত্রী প্রণজিত সিংহ রায় বলেন, আগরতলা-পুরী রেল সংযোগ স্থাপনের জন্যও রাজ্য সরকার রেল মন্ত্রকের কাছে আবেদন করার চিন্তাভাবনা করছে। বর্তমানে রাজ্য থেকে ৯টি এক্সপ্রেস ট্রেন চালু রয়েছে। মন্ত্রীর কথায়, দেওঘরে সৎসঙ্গ আশ্রমে আয়োজিত ধর্মীয় সম্মেলনে রাজ্যের ভক্তবৃন্দদের অংশগ্রহণের সুবিধার্থে মুখ্যমন্ত্রী প্রফেসর (ডা.) মানিক সাহার বিশেষ অনুরোধে কেন্দ্রীয় রেল মন্ত্রকের পক্ষ থেকে দুটি বিশেষ যাত্রীবাহী ট্রেনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টায় একটি ট্রেন আগরতলা রেল স্টেশন থেকে দেওঘরের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়েছে। শনিবার বিকাল ৩টায় আরও একটি যাত্রীবাহী ট্রেন দেওঘরের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হবে।
এদিন আগরতলা রেল স্টেশনে ফ্ল্যাগ অফ করে দেওঘরের ট্রেন যাত্রার সূচনা করে পরিবহণ মন্ত্ৰী প্ৰণজিৎ সিংহ রায় বলেন, এই দুটি বিশেষ ট্রেন ছাড়াও প্রত্যেক শনিবার নির্ধারিত দেওঘরের ট্রেনও চলাচল করবে। মন্ত্রী জানিয়েছেন, রাজ্য সরকারের প্রচেষ্টায় ২০১৮র ৬ জুলাই থেকে দেওঘরের সাথে সরাসরি ট্রেন পরিষেবা চালু করা হয়েছিল। পরবর্তীতে করোনা অতিমারী ও প্রাকৃতিক দুর্যোগের জন্য এই ট্রেন পরিষেবা এতদিন বন্ধ ছিল। মুখ্যমন্ত্রী প্রফেসর (ডা.) মানিক সাহার বিশেষ অনুরোধে এই ট্রেন পরিষেবা পুনরায় চালু হয়েছে। সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে পরিবহণ মন্ত্রী বলেন, শুক্রবার ও শনিবার বিশেষ ট্রেনে ৪ হাজারের বেশী ভক্তবৃন্দ দেওঘরে যাবেন। তিনি আশা প্রকাশ করেন যারাই এই যাত্রায় সামিল হচ্ছেন তারা সুস্থ ও বিপদমুক্তভাবে তাদের যাত্রা সম্পূর্ণ করতে পারবেন। আগরতলা-দেওঘর ট্রেন যাত্রার সূচনা অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পরিবহণ দপ্তরের প্রাধান সচিব এল ডার্লং এবং রেল ও পরিবহণ দপ্তরের আধিকারিকগণ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.