ডেস্ক রিপোর্টার,৮ এপ্রিল।।
বছর ঘুরলেই বিধানসভা নির্বাচন। এই নির্বাচনের আগে গোটা পাহাড় জুড়ে চলছে প্রদ্যুত হওয়া। পাহাড়ের সর্বত্রই প্রদ্যুত কিশোরের তিপ্রামথা প্রবল বিক্রমে দাপিয়ে চলছে। বিধানসভা ভোটকে সামনে রেখে প্রদ্যুত কিশোর কোনো খামতি রাখতে চাইছেন না। তিপ্রাসাদের সমস্ত ভোট নিংড়ে নিতে সব দিগন্তেই জাল বিস্তার করেছেন প্রদ্যুত কিশোর।
জনজাতি সম্প্রদায়ের লোকজন যে যে ক্ষেত্রে কাজ করছেন, সেই সমস্ত জায়গাতে পৌঁছে যাচ্ছেন প্রদ্যুত। বিভিন্ন কেন্দ্রীয় বাহিনীতে ত্রিপুরার জনজাতি অংশের প্রচুর লোকজন রয়েছেন। এবার তাদের কাছে সরাসরি পৌঁছে যাওয়ার চেষ্টা করছেন প্রদ্যুত।
বৃহস্পতিবার প্রদ্যুত কিশোর চলে যান আসাম রাইফেলস ক্যাম্পে। এখানে কর্মরত এ আর জওয়ানদের(তিপ্রাসা) সঙ্গে দীর্ঘ সময় নানান বিষয়ে আলোচনা করেন প্রদ্যুত কিশোর। তাদের আলোচনায় উঠে আসে নানান ইস্যু। প্রদ্যুত কিশোর দেববর্মন সোশ্যাল মিডিয়ায় জানিয়েছেন,” তিপ্রাসা এ আর জওয়ানদের সঙ্গে কথা বলে তিনি আপ্লুত।আগামীদিনে আসাম রাইফেলসের সঙ্গে আলোচনা করে এডিসিতে সৈনিক স্কুল করার কথাও বলেছেন প্রদ্যুত।”
তিপ্রামথার সুপ্রিমো বলেছেন,”তিপ্রাসারা দেশ প্রেমিক,তারা থাকবে জাতির পাশে “। প্রদ্যুত কিশোরের এই উদ্যোগকের প্রশংসা করেছে মথার বাদবাকি নেতৃত্ব।
তিপ্রামথার সুপ্রিমো প্রদ্যুত কিশোরের আসাম রাইফেলস ক্যাম্পে গিয়ে তিপ্রাসা জওয়ানদের সঙ্গে সময় কাটানো রাজনৈতিক ভাবে যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল।
পাহাড়ের বিভিন্ন অঞ্চলে টিএসআর, সিআরপিএফের পাশাপাশি আসাম রাইফেলসও নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকে। এই বাহিনীতে কর্মরত তিপ্রাসা জওয়ানরাও কাজ করে থাকে সংশ্লিষ্ট অঞ্চলগুলিতে।স্বাভাবিক ভাবেই আসাম রাইফেলসে কর্মরত তিপ্রাসা জওয়ানদের সঙ্গে প্রদ্যুত কিশোরের এই আলোচনা পর্ব নানান ভাবে বিশ্লেষণ করেছে রাজনৈতিক মহল।

Leave a Reply

Your email address will not be published.