ডেস্ক রিপোর্টার,৯আগস্ট
বিজেপি-তৃনমূল সংঘর্ষে তপ্ত রাজ্য রাজনীতি।আমবাসা থেকে খোয়াই এবং আগরতলা সর্বত্রই বাড়ছে রাজনীতির উষ্ণতা। খোয়াই থানায় তৃনমূল কর্মী সমর্থকদের গ্রেফতারের ঘটনার প্রতিবাদে রবিবার রাজ্যে এসেছিলেন তৃনমূল কংগ্রেসের সর্ব ভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক ব্যানার্জী। তিনি রাজ্যে এসে সরাসরি আক্রমণ করেন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেবকে।অভিষেক বলেন,” বিপ্লব দেবের শেষের শুরু।”
তৃনমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক ব্যানার্জীর বক্তব্যকে কটাক্ষ করেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব।মুখ্যমন্ত্রী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে মন্তব্য করেন,” ত্রিপুরার উন্নয়নের গতিকে রুখে দিতে সক্রিয় একটা অংশ।রাজনৈতিক স্বার্থ চরিতার্থ করতে রাজ্যে ষড়যন্ত্র
করছে।”
রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব স্পস্ট করেই বলেন,কিছু দল যারা ত্রিপুরায় সক্রিয় হওয়ার চেষ্টা করছে তারা উন্নয়নের নিরিখে অধিকাংশ ক্ষেত্রে ত্রিপুরা থেকে পিছিয়ে। মুখ্যমন্ত্রী টুইটারে দাবি করেছেন,রাজনৈতিক স্বার্থ সিদ্ধি নয়, বরং রাজ্যের সার্বিক বিকাশই বিজেপি’র লক্ষ্য। বিভিন্ন ক্ষেত্রে উন্নয়নের নিরিখে গোটা দেশের মধ্যে নজির গড়েছে ত্রিপুরা।”
মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব,তাঁর টুইটের মাধ্যমে বুঝিয়ে দিয়েছেন,তৃনমূল কংগ্রেস রাজ্যে যতই সক্রিয় হোক না কেন,মানুষ উন্নয়নের জন্য বিজেপি’র পাশে থাকবে।সুতরাং তৃনমূল কংগ্রেস সর্ব শক্তি নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়লেও রাজ্য রাজনীতির মূল ব্যাটন থাকবে বিজেপি’র হাতেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published.