ডেস্ক রিপোর্টার, আগরতলা।। তিপ্রামথার চেয়ারম্যান প্রদ্যুত কিশোর রাজ্যে দাঙ্গা চাইছেন।প্রদ্যুত নিজেই তাঁর কর্মী-সমর্থকদের সন্ত্রাসের জন্য উস্কে দিচ্ছে।দলের উপর তাঁর কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই।”—- বক্তা সাংসদ রেবতী ত্রিপুরা। বৃহস্পতিবার রাজ্য বিজেপি’র সদর দপ্তরে সাংবাদিক বৈঠক করে একথা বলেন তিনি।
গত ৪জুন সাংসদ রেবতী ত্রিপুরা ও পাতালকন্যার উপর হামলা হয়েছিলো তৈদুতে। বৃহস্পতিবার ফের টাকারজলাতে মন্ত্রী রামপদ জমাতিয়া এবং পাতালকন্যার উপর হামলা হয়েছে। এই ঘটনা প্রসঙ্গে সাংসদ রেবতী ত্রিপুরা বলেন, ” প্রদ্যুতের নির্দেশেই বিজেপি নেতৃত্বের উপর হামলা করেছে তিপ্রা মথার কর্মী সমর্থকরা। কারণ প্রদ্যুত ভয় পাচ্ছেন পাতাল কন্যার জনপ্রিয়তাকে। দিন দিন পাহাড়ে জনভিত্তি হারাচ্ছে তিপ্রামথা।তাই ভীত সন্ত্রস্ত প্রদ্যুত সন্ত্রাসকেই হাতিয়ার করছে।”
“প্রদ্যুত কিশোর এডিসি প্রশাসন চালাতে পুরোপুরি ব্যর্থ। চরম দুর্নীতি চলছে এডিসিতে। প্রদ্যুত এডিসির দুর্নীতি ঢাকতে নানান হুমকি দিচ্ছেন। আসলে শাক দিয়ে মাছ ডেকে এডিসির দুর্নীতি আড়াল করতে চাইছে।” বলেছেন রেবতী ত্রিপুরা।
রেবতী ত্রিপুরা প্রদ্যুতকে কটাক্ষ করে বলেন, প্রদ্যুত কিশোর এখনো নিজেকে ত্রিপুরার রাজা মনে করছেন।তিনি দেখছেন রাজার মেজাজ।কিন্তু জনজাতিরা প্রদ্যুত কিশোরের উদ্দেশ বুঝতে পেরেছে।আগামী দিনে পাহাড় থেকে খালি হাতেই ফিরতে হবে প্রদ্যুত কিশোরকে। রেবতী ত্রিপুরা পরিষ্কার করেই বলেছেন, পাহাড়ে ধস নামতে শুরু করেছে তিপ্রামথা শিবিরে।মানুষ বিজেপিতে যোগ দিচ্ছে।এই কারণে প্রদ্যুত ভীত হয়ে উঠছেন।এবং হুমকির সুরে বলছেন কথা। তাঁর এই সমস্ত হম্বি-তম্বি কেউ গুরুত্ব দেয় না।

Leave a Reply

Your email address will not be published.