ডেস্ক রিপোর্টার, ১০সেপ্টেম্বর।।
“২৩-র বিধানসভা নির্বাচনে যত বেশী সংখ্যক আসন দখল করা যায় তার জন্য কাজ করবো।প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বের ২৩-এ ফের সরকার গঠন করবে বিজেপি।”….. বক্তা রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব। শনিবার রাজ্যে এসে একথা বলেন তিনি। এদিন বিপ্লব দেবকে ঘিরে বিজেপির কর্মী – সমর্থকদের মধ্য ছিলো বাদন হারা উল্লাস।কারণ বিপ্লব কুমার রাজ্য সভাতে ত্রিপুরার একমাত্র আসনে বিজেপির টিকিটে লড়াই করবেন। একই সঙ্গে বিপ্লব কুমার দেবকে হরিয়ানার বিজেপির প্রভারীর দায়িত্ব দিয়েছে কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। নিঃসন্দেহে বিপ্লব কুমার দেবের রাজনৈতিক ক্যারিয়ারে এদিনটি যথেষ্ট গুরুত্ববহ।

জন প্লাবনের মাঝে বিপ্লব দেব।

শনিবার রাজ্যে আসেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব। প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানাতে আগরতলা এমবিবি আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে উপস্থিত ছিলো বিজেপির কয়েক হাজার কর্মী – সমর্থক। তারা বিপ্লব কুমার দেবকে পেয়ে আপ্লুত।এদিন বিমানবন্দরে গিয়ে  বিপ্লব কুমার দেবকে উষ্ণ অভিনন্দন জানান রাজ্য বিজেপির সভাপতি রাজীব ভট্টাচার্য্য, সহ – সভাপতি অমিত রক্ষিত সহ অন্যান্য নেতৃত্ব।
             এদিন এমবিবি বিমানবন্দরে দাড়িয়ে প্রাক্তন বিপ্লব কুমার দেব বলেন, কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব একই সঙ্গে তাকে দুইটি দায়িত্ব দিয়েছে। হরিয়ানার প্রভারী করার পাশাপাশি তিনি রাজ্যসভার  একটি আসন থেকে বিজেপির প্রার্থী হয়ে লড়াই করবেন। তার জন্য বিপ্লব কুমার দেব ধন্যবাদ জানিয়েছেন  প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী,বিজেপির সর্ব ভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা ও কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে।


বিপ্লব কুমার দেব দলীয় কর্মী সমর্থকদের উচ্ছাস প্রসঙ্গে বলেন,” কার্যকর্তারা আমার প্রাণ।২০১৮ থেকেই আমার পাশে ছিলো,আজও আছে।”সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে বিপ্লব কুমার দেব বলেন, আমাকে রাজ্য থেকে তাড়ানোর জন্য কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব এই সিদ্ধান্ত নেয়নি। বরং কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব আস্থা রেখেছে। তাছাড়া রাজ্যসভাতে ত্রিপুরার একমাত্র আসন থেকে লড়াই করবো।এবং জয়ের পর ত্রিপুরার মানুষের জন্যই কাজ করবো।
             এদিন আগরতলা এমবিবি বিমান বন্দরে বিজেপির কর্মী – সমর্থকদের উপস্থিতি থেকে স্পষ্ট রাজ্য রাজনীতিতে বিপ্লব কুমার দেবের জনপ্রিয়তা একটুও কমে নি। বরং এই মুহূর্তে জনপ্রিয়তার তুঙ্গে বিপ্লব কুমার দেব।

Leave a Reply

Your email address will not be published.