ডেস্ক রিপোর্টার,১০নভেম্বর।।
পুর ও নগর ভোটের জন্য তৃণমূল কংগ্রেস বঙ্গ থেকে নয়জনকে পাঠিয়েছে ত্রিপুরায়।নেতা-বিধায়ক মিলিয়ে এই নয়জনকে পুর ও নগর ভোটের পর্যবেক্ষক হিসাবে নিযুক্তি দেওয়া হয়েছে।তাদের মধ্যে পাঁচজন বিধায়ক।
শাসক দল বিজেপি নেতৃত্বের অভিযোগ, ত্রিপুরায় আসা তৃণমূল কংগ্রেসের নয়জন পর্যবেক্ষকের বিরুদ্ধে থানা-আদালতে একাধিক মামলা ঝুলছে।তাদের আস্ফালন বঙ্গের মানুষ আতঙ্কিত।বিজেপি নেতৃত্বের বক্তব্য,সামশেররগঞ্জের বিধায়ক আমিরুল ইসলামের বিরুদ্ধে তিনটি মামলা ঝুলছে আদালতে।তৃণমূল কংগ্রেসের প্রাক্তন সাংসদ পার্থ প্রতীম রায়ের বিরুদ্ধেও একগুচ্ছ মামলা রয়েছে আদালতে। তার মধ্যে শিশুদের যৌনকর্মী হিসেবে ব্যবহারের জন্য কেনাবেচার অভিযোগও রয়েছে তার বিরুদ্ধে।
বাংলার বর্ধমান দক্ষিণের বিধায়ক খোকন দাসের বিরুদ্ধে মোট নয়টি মামলা রয়েছে। রয়েছে অস্ত্র মামলাও।গত বিধানসভা ভোটের সময়ে তিনি নিজেই নাকি কমিশনের কাছে হলফনামা দিয়ে এই তথ্য দিয়েছিলেন। রাজ্যে আসা অপর বিধায়ক নারায়ণ গোস্বামীর বিরুদ্ধেও পুলিশের খাতায় মামলা লিপিবদ্ধ রয়েছে। তিনটি মামলা ঝুলে রয়েছে উত্তর ২৪ পরগণা জেলার অশোকনগরের এই বিধায়কের বিরুদ্ধে। পর্যবেক্ষকদের তালিকায় রয়েছে পূর্ব মেদিনীপুর জেলা যুব তৃণমূলের সভাপতি সুপ্রকাশ গিরি। তিনিও এসেছেন রাজ্যে।থানায় ঢুকে পুলিশকে তর্জনি উঁচিয়ে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধেও।পশ্চিম বর্ধমান জেলার শিল্প শহর আসানসোলের প্রাক্তন কাউন্সিলর অভিজিৎ ঘটক। তিনি বাংলার মন্ত্রী মলয় ঘটকের ভাই। অভিজিৎ ঘটকও রাজ্যে এসেছেন।তার বিরুদ্ধে তোলাবাজির অভিযোগ রয়েছে বলে অভিযোগ প্রদেশ বিজেপি নেতৃত্বের।
শাসক দলের অভিযোগ তৃণমূল কংগ্রেস তাদের দাগি বিধায়ক ও নেতাদের পাঠিয়েছে ত্রিপুরায়।তারা রাজ্যে এসে পরিস্থিতি আরো জটিল করার চেষ্টা করতে পারে।এমন আশঙ্কা করছে রাজ্যের গেরুয়া শিবিরের নেতৃত্ব।

Leave a Reply

Your email address will not be published.