স্পোর্টস ডেস্ক,১২ জানুয়ারি।।
প্রীতি ক্রিকেটে সাংবাদিক ক্রিকেটারদের জয়ের ধারা ব্যাহত হয়েছে প্রাক্তন ক্রিকেটারদের কাছে। জাতীয় যুব দিবসকে সামনে রেখে আয়োজিত প্রীতি ম্যাচে প্রাক্তন ক্রিকেটাররা জয়ী হয়েছেন। গত বছর এমন দিনেই প্রাক্তন ক্রিকেটারদের দল সাংবাদিকদের কাছে পরাজিত হয়ে সিরিজে ০-১এ পিছিয়ে ছিল। বুধবার ৮৭ রানের ব্যবধানে জয়ের সুবাদে কার্যত সিরিজ ১-১এ সমতায় ফিরে এলো। এদিন স্থানীয় এমবিবি স্টেডিয়ামে বেলা ১১টায় ম্যাচ শুরুতে টস জিতে জার্নালিস্ট রিক্রিয়েশন ক্লাবের অধিনায়ক অভিষেক দে প্রথমে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়ে প্রাক্তন ক্রিকেটার একাদশকে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানান। সীমিত কুড়ি ওভারে ৫ উইকেটে প্রাক্তন ক্রিকেটাররা ১৮৪ রান সংগ্রহ করেন। দলের পক্ষে অধিনায়ক কিশোর কুমার দাস অপরাজিত ভূমিকায় সর্বাধিক ৫৬ রান সংগ্রহ করে অভিজ্ঞতার পরিচয় দেন। এছাড়া, শুভ্রজিৎ রায়ের ৪৭ রান এবং অমিত দাসের ৩৭ রান উল্লেখযোগ্য। জেআরসি-র মনোজিৎ ৪৬ রানে তিনটি এবং বিশ্বজিৎ দেবনাথ ও অনির্বাণ দেব একটি করে উইকেট পেয়েছেন। জবাবে ব্যাট করতে নেমে জার্নালিস্ট রিক্রিয়েশন ক্লাব ৯ উইকেট হারিয়ে ৯৭ রান সংগ্রহ করতেই সীমিত কুড়ি ওভার ফুরিয়ে যায়। দলের পক্ষে মনোজিৎ সর্বাধিক ২৯ রান সংগ্রহ করে। এছাড়া, বাপন দাসের ১৬ এবং বিশ্বজিৎ দেবনাথের ১১ রান কিছুটা উল্লেখ করার মতো। খেলা শুরুর আগে এক সংক্ষিপ্ত অনুষ্ঠানে স্বামী বিবেকানন্দের প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করা হয়। বেলুন ও সাদা পায়রা শূন্যে ভাসিয়ে শান্তির প্রত্যাশা করা হয়। স্বাগত ভাষণ রাখেন টুর্নামেন্ট অ্যাডভাইজারি কমিটির চেয়ারম্যান উত্তম দে। খেলা শেষে এক মনোজ্ঞ অনুষ্ঠানে বিজয়ীদের পুরস্কৃত করা হয়। একই অনুষ্ঠানে রাজ্যের প্রথম রঞ্জি দলের অধিনায়ক রজত কান্তি সেন সহ ৩০ জন ক্রিকেটারদের সংবর্ধনা জানানো হয়। পাশাপাশি
তিনজন ক্রীড়া সাংবাদিক সরযূ চক্রবর্তী, শান্তনু বণিক ও অনির্বাণ দেবকেও সংবর্ধনা জানানো হয়। অনুষ্ঠানে আগরতলা প্রেসক্লাবের সভাপতি তথা রাজ্যের সংবাদ জগতের পুরোধা ব্যক্তিত্ব সম্পাদক সুবল কুমার দে, আইনজ্ঞ রঘুনাথ মুখার্জি প্রমুখ বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন। খেলায় সেরা ব্যাটসম্যান হিসেবে শুভ্রজিৎ রায়, সেরা বোলার হিসেবে অমিত দাস এবং ম্যান অব দ্য ম্যাচের পুরস্কার পেয়েছেন কিশোর কুমার দাস। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় এবং ধারাভাষ্যে ছিলেন সুপ্রভাত দেবনাথ ও সিদ্ধার্থশঙ্কর চৌধুরী। প্রীতি ক্রিকেট ম্যাচ ও সামগ্রিক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজক ত্রিপুরা ক্রিকেট এসোসিয়েশনের যুগ্ম সম্পাদক কিশোর কুমার দাস সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানান এবং আগামী দিনেও রাজ্য ক্রিকেটের মানোন্নয়ন ও প্রসারের লক্ষ্যে সাধ্যানুযায়ী প্রয়াস চালিয়ে যাবেন বলে অঙ্গীকার করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.