ডেস্ক রিপোর্টার,১২মে।।
২৩-র ভোটের আগেই বিজেপি’র শরিক দল আইপিএফটি’র সংসারে দাউ দাউ করে জ্বলছে আগুন। দলের সভাপতির পদ নিয়ে এনসি দেববর্মা ও মেবার কুমার জমতিয়ার মধ্যে চলছে। আইপিএফটি’র সুপ্রিমো এনসি দেববর্মার সাংবাদিক বৈঠক করে জানিয়ে দিয়েছেন, তিনিই এখন দলের সভাপতি। বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। গত ৩ ও ৪ এপ্রিল কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠকে গঠিত রাজ্য কমিটিকে বাতিল করে দেওয়া হয়েছে। স্বাভাবিক ভাবেই সেই কমিটির সভাপতি মেবার কুমার জমতিয়াও আর রইলো না সভাপতির পদ।
এন সি দেববর্মার সাংবাদিক বৈঠকের পর পাল্টা বক্তব্য দেন মেবার কুমার জমতিয়া। মেবার নিজেকে সভাপতি বলে দাবি করেন।তিনি বলেন, দলের কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠকে তাঁকে দলের সভাপতি করা হয়েছিলো। তাঁর কাছে এই সংক্রান্ত কাগজও রয়েছে। সাংবাদিক বৈঠকে এনসি দেববর্মার স্বাক্ষর করা সেই সংক্রান্ত নথিও তিনি তুলে ধরেন।
আইপিএফটির সুপ্রিমো এনসি দেববর্মা বলেন, গত এপ্রিল মাসে দলের পূর্ণাঙ্গ রাজ্য কমিটি গঠিত হয়নি। তাই বৃহস্পতিবার অন্তর্বর্তী কালীন বৈঠক ডেকে পূর্ণাঙ্গ রাজ্য কমিটি গঠন করা হয়েছে। গঠন করা হয়েছে দলের ২৭টি বিভাগের কমিটিও।বাদবাকি আরো ৬টি বিভাগের কমিটির লোকজন এদিনের বৈঠকে আসতে পারেননি।তারা পরবর্তী সময়ে কমিটি গঠন করে নেবে।
এনসি দেববর্মার কথায়, সম্প্রতি আইপিএফটি’র ভাঙ্গন নিয়ে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয়েছিলো।এই সমস্ত খবর সম্পুর্ন ভুল,বিভ্রান্তিকর। তবে এই ঘটনার জন্য দলের কয়েকজন নেতাকেই দায়ী করছেন।এনসি দেববর্মা বলেন, যারা দলের সঙ্গে ষড়যন্ত্র করছে,তাদের সনাক্ত করা হয়েছে।তাদের বিরুদ্ধে দল দ্রুত শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেবে।
” বিজেপি’র সঙ্গে বরাবর রক্ষা করা হবে জোট ধর্ম।আইপিএফটি থাকবে বিজেপি’র সঙ্গেই। অন্য কোনো দলের সঙ্গে আইপিএফটি মিশবে না।” বলেছেন, এনসি দেববর্মা।
মেবার কুমার জমতিয়া বলেন, দলের এই উদ্ভট পরিস্থিতি আলোচনার মাধ্যমে মিটিয়ে নেওয়া হবে। তিনি নিজেকে আইপিএফটি’র সভাপতি দাবি করে বলেন, মাত্র একমাসের মধ্যে ‘সভাপতি’কে কিভাবে সরিয়ে দেওয়া কথা বলছে এনসি দেববর্মা? মেবারের যুক্তি, তাঁর কাছে সমস্ত তথ্য প্রমান রয়েছে। কমিটি সর্ব সম্মতি ক্রমেই তাকে সভাপতি’র দায়িত্ব দিয়েছিলো।
এটা বাস্তব, আইপিএফটি’র একটা বড় অংশ অনেক আগেই তিপ্রামথাতে মিশে গিয়েছিলো।এখন আইপিএফটি’র আরও কিছু নেতা-কর্মী মথা মুখী।এই পরিস্থিতিতে আগামী দিনে পাহাড়ে আইপিএফটি’র অস্তিত্ব কতদিন থাকবে?তা নিয়ে শুরু হয়েছে জল্পনা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.