ডেস্ক রিপোর্টার, আগরতলা।।
রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠকে শুক্রবার বিভিন্ন দপ্তরে লোক নিয়োগ এবং নতুন পদ সৃষ্টি করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর সচিবালয়ের প্রেস কনফারেন্স হলে আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনে তথ্য ও সংস্কৃতিমন্ত্রী সুশান্ত চৌধুরী মন্ত্রিসভার সিদ্ধান্তগুলি তুলে ধরে বলেন, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ দপ্তরে ২০০টি ফার্মাসিস্ট (অ্যালোপ্যাথি) পদে লোক নিয়োগের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে মন্ত্রিসভার বৈঠকে। অর্থদপ্তরের অধীন অডিট ডিরেক্টোরেটে ২০ জন মাল্টিটাস্কিং স্টাফ নিয়োগের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। মন্ত্রিসভার বৈঠকে এক্সাইজ দপ্তরে ৯ জন সাব-ইনস্পেক্টর নিয়োগ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এই পদগুলি টিপিএসসি’র মাধ্যমে পূরণ করা হবে।
তথ্য ও সংস্কৃতি মন্ত্রী জানান, খাদ্য দপ্তরে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে মোট ৩৫ জন লোক নিয়োগের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। এরমধ্যে সাব-ইনস্পেক্টর পদে ৬ জন, ফিউমিগেশন অ্যাসিস্ট্যান্ট পদে ৩ জন, জুনিয়র স্টোর কিপার পদে ৬ জন এবং এল ডি সি পদে ২০ জন নিয়োগ করা হবে। অগ্নিনির্বাপক দপ্তরে ৮টি অ্যাসিস্টেন্ট ডিভিশনাল ফায়ার অফিসারের পদ সৃষ্টি করার অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও পূর্ত দপ্তরে ড্রাফটসম্যান, জুনিয়র ড্রাফটসম্যান, সার্ভেয়ার, সিনিয়র সার্ভেয়ার এবং ওভারশিয়ার ক্যাটাগরিতে ১৪৭টি টেকনিক্যাল পদ সৃষ্টি করার অনুমোদন দেওয়া হয়েছে মন্ত্রিসভার বৈঠকে। এই পদগুলি পদোন্নতির মাধ্যমে পূরণ করা হবে। এছাড়াও ফার্মাসিস্ট (অ্যালোপ্যাথি), ল্যাব টেকনিশিয়ান, অপথালমিক অ্যাসিস্ট্যান্ট পদের রিক্রুটমেন্ট রুলস-এর কিছু পরিবর্তন করার অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। তিনি জানান, আগে ফার্মাসিস্ট (অ্যালোপ্যাথি), ল্যাব টেকনিশিয়ান, অপথালমিক অ্যাসিস্ট্যান্ট পদে চাকুরী পাওয়ার ক্ষেত্রে ফার্মাসিস্টে ডিপ্লোমা যোগ্যতা হিসেবে ছিল। রিক্রুটমেন্ট রুলস পরিবর্তনের ফলে এখন থেকে ফার্মাসিস্টে ডিগ্রী হোল্ডাররাও এই পদগুলির জন্য যোগ্য বলে বিবেচিত হবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.