ডেস্ক রিপোর্টার,১৪সেপ্টেম্বর।।
অবশেষে তৃতীয় বার অভিষেক ব্যানার্জীর পদযাত্রায় দিনক্ষণ স্থির করলো তৃণমূল কংগ্রেস। এবার আগামী ২২সেপ্টেম্বর আগরতলায় পদযাত্রা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন অভিষেক ব্যানার্জী। মঙ্গলবার সাংবাদিক সম্মেলনে করে একথা জানিয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপাত্র তথা সর্বভারতীয় সম্পাদক কুনাল ঘোষ।
তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপাত্রের বক্তব্য, আগামী ২২সেপ্টেম্বর যদি অভিষেক ব্যানার্জী পদযাত্রা না করতে পারেন তাহলে আদালতের দ্বারস্থ হবে তৃণমূল কংগ্রেস। প্রথমবার তৃণমূল সিদ্ধান্ত নিয়েছিলো আগামী ১৫সেপ্টেম্বর অভিষেক ব্যানার্জী পদযাত্রা করবেন।কিন্তু পুলিশ অনুমতি দেয়নি। তৃণমূল কংগ্রেস ১৬ সেপ্টেম্বর অভিষেকের পদযাত্রা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলো।তাতেও রাজি হয়নি পুলিশ।কুণাল ঘোষের কথায়, বিশ্বকর্মা পূজোর অজুহাত দেখিয়ে পুলিশ পদযাত্রার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে।
তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ জানান,১৭সেপ্টেম্বর পদযাত্রায় অনুমতি না দিলে আদালতের দ্বারস্থ হবে তৃণমূল।এরপর কিভাবে কর্মসূচি বাস্তবায়ন করা হবে তার সিদ্ধান্ত নেবেন দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক ব্যানার্জী। “ত্রিপুরার শাসক দল বিজেপি ভয় পেয়ে গেছে তৃণমূলকে।এই কারণেই তৃণমূলকে আটকানোর চেষ্টা করছে।”বললেন কুণাল।
টিএমসি’র মুখপাত্র প্রসঙ্গ টেনে বলেন, বঙ্গ থেকে আসা তৃণমূল কংগ্রেসের নেতাদের আগরতলার কোনো হোটেলে থাকতে দেওয়া হচ্ছে না।এটা কোনো সংস্কৃতি? ত্রিপুরার সঙ্গে বাংলার নারীর টান।ত্রিপুরা ও বাংলা একেই বাড়ির দুটি ঘর বলেও মন্তব্য করেন কুণাল। তৃণমূল নেতৃত্ব আত্মবিশ্বাসী একমাত্র তৃণমূলই বিজেপিকে পরাজিত করে ক্ষমতা দখল করতে পারে।

One thought on “আগামী ২২সেপ্টেম্বর অভিষেকের পদযাত্রা।<br>বাংলা-ত্রিপুরা এক বাড়ির দুই ঘর:কুণাল”
  1. তূনমুলের ভুলে গেলে চলবে না? বাংলায় নির্বাচনের সময় বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাডডার কনভয়ে শাবল,দাও,রড, বল্লম নিয়ে আক্রমন করে গাড়ি গুলো ভেঙে ছিল । নাডডাজী ও ওনার সংগে নেতারা অল্প বিস্তর আহত হয়ে কোন ভাবে বেঁচে ছিল। তারপর সভা করতে parmition দিত না। ওরা ভুলে গেলেও ত্রিপুরা র বিজেপি ভুলে নি। তাই তাদের শিখিয়ে দেওয়া অস্ত্রেই ওদের কাবু করছে। দেখ ভাই ক্ষমতা হাতে কি করা যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.