ডেস্ক রিপোর্টার,১৬এপ্রিল।।
রাজধানীর ৬-আগরতলা বিধানসভা কেন্দ্র থেকে উপ-নির্বাচনে কংগ্রেসের টিকিটে লড়বেন সুদীপ রায় বর্মন। যদি দল তাঁকে সেই অনুমতি দেয়। জানিয়েছেন খোদ সুদীপ রায় বর্মন। শনিবার সকালে নিজের কেন্দ্রে জনসংযোগ কর্মসূচিতে বেরিয়ে একথা বলেন সুদীপ। রাজ্যের প্রাক্তন স্বাস্থ্যমন্ত্রী সুদীপ রায় বর্মনের এই ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে উপ-নির্বাচনের উত্তেজনার পারদ আরো কয়েকগুণ বেড়ে গিয়েছে বলেই মনে করছেন রাজনীতিকরা। এককথায় বাংলা নতুন বছর থেকেই শুরু হয়ে গেলো রাজ্য রাজনীতির আরো এক নতুন ইনিংস।
নির্বাচন কমিশন সূত্রের খবর, আগামী দুয়েক দিনের মধ্যেই রাজ্যের চার বিধানসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচনের দিনক্ষণ ঘোষণা করবে কমিশন। মে মাসের গোড়াতেই অনুষ্ঠিত হবে উপভোট। এই ভোট নিয়ে চূড়ান্ত প্রস্তুতি চলছে নির্বাচন কমিশনে। ঘুঁটি সাজাচ্ছে প্রতিটি রাজনৈতিক দল।
রাজধানীর দুই হেভিওয়েট কেন্দ্র ৬-আগরতলা ও ৮-টাউন বড়দোয়ালী। এই দুইটি কেন্দ্র ছিলো বিজেপি’র দখলে। ভারতীয় জনতা পার্টির এই দুই কেন্দ্রের বিধায়ক সুদীপ রায় বর্মন ও আশীষ কুমার সাহা পদ্ম শিবিরের সঙ্গে সঙ্গ ত্যাগ করে যোগ দিয়েছিলেন কংগ্রেসে। এবং তারা বিধায়ক পদ থেকে করেছিলেন পদত্যাগ। স্বাভাবিক ভাবেই দুইটি কেন্দ্র বিধায়ক শূন্য হয়ে পড়ে। এবং উপ নির্বাচনের পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়।
এতদিন রাজনৈতিক মহলে জল্পনা ছিলো উপনির্বাচনে সুদীপ-আশীষ তাদের কেন্দ্র থেকে লড়াই করবে কিনা? শেষ পর্যন্ত এই প্রশ্নের ইতি টানলেন খোদ সুদীপ রায় বর্মন। তিনি বলেছেন,”দল তাকে অনুমতি দিলে উপনির্বাচনে নিজ কেন্দ্র থেকে লড়াই করবেন।” সুদীপ রায় বর্মন ইতিমধ্যে এলাকায় বেড়িয়েছেন জন সংযোগে।যদিও সুদীপ বলেন, বরাবরই তিনি মানুষের পাশে থাকেন। এই জন সংযোগ তাঁর জন্য নতুন নয়।
রাজনীতিকরা বলছেন, কংগ্রেসের কাছে আগরতলা কেন্দ্রে সুদীপ রায় বর্মনের বিকল্প কেউ নেই।তাছাড়া তিনিই ছিলেন এই কেন্দ্রের প্রাক্তন বিধায়ক।স্বাভাবিক ভাবেই প্রদেশ কংগ্রেস তাঁকে এই কেন্দ্র থেকে যে টিকিট দেবে,তা বলার অপেক্ষা রাখে না।
রাজধানীর অপর হেভিওয়েট কেন্দ্র টাউন বড়দোয়ালি।এই কেন্দ্রেও হবে উপ নির্বাচন। টাউন বড়দোয়ালী থেকে কংগ্রেসের টিকিটে লড়াই করার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন আশীষ সাহা। প্রাক্তন বিধায়ক আশীষ কুমার সাহা “জনতার মশাল”কে জানিয়েছেন, ” তাঁর ইচ্ছা রয়েছে কংগ্রেসের টিকিটে লড়াই করার জন্য।যদি দল ছাড়পত্র দেয়।” প্রায় সুদীপের সুরেই বলেছেন আশীষ। টাউন বড়দোয়ালির ক্ষেত্রে কংগ্রেসের কাছে আশীষ কুমার সাহার কোনো বিকল্প মুখ নেই।তাছাড়া তিনি এই কেন্দ্রের প্রাক্তন বিধায়ক।স্বাভাবিক ভাবেই টাউন বড়দোয়ালি কেন্দ্র থেকে আশীষ কুমার সাহাই যে কংগ্রেসে মুখ হচ্ছেন, তা বলাই বাহুল্য। ” টাউন বড়দোয়ালি কেন্দ্রে ভোটাররা তাদের গণতান্ত্রিক অধিকার সুষ্ঠ ভাবে প্রয়োগ করতে পারলে নির্বাচনে নিশ্চিত জয় পাবেন তিনি”। “জনতার মশাল”কে একথা জানিয়েছেন খোদ আশীষ কুমার সাহা। প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি বীরজিৎ সিনহা “জনতার মশাল”কে জানিয়েছেন, ৬-আগরতলা ও ৮-টাউন বড়দোয়ালি কেন্দ্র উপভোটে কংগ্রেসের প্রার্থী হবেন সুদীপ-আশীষই। প্রদেশ সভাপতির সিলমোহর থেকেই স্পস্ট কংগ্রেস রাজনীতির জল কোন দিকে গড়াচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.