ডেস্ক রিপোর্টার,১৭জানুয়ারি।।
গাঁজা পাচারের অভিযোগে অভিযুক্ত বহিঃরাজ্যের দুই কারবারীকে সশ্রম কারাদণ্ডের নির্দেশ দিলো বিশেষ আদালত। অভিযুক্তরা হলো মিঠু কুমার সিং ও অমর কুমার সিং।তারা বিহারের ভাগলপুর জেলার বাসিন্দা।গত ১৫জানুয়ারি বিশেষ আদালতের বিচারক অংশুমান দেববর্মা এই রায় ঘোষণা করেন।অভিযুক্তদের ১লক্ষ টাকা জরিমানাও করে আদালত।অনাদায়ে আরো ৬মাসের কারাদণ্ডের নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক। সোমবার সাংবাদিক সম্মেলন করে আদালতের এই রায়ের কথা জানিয়েছেন পাবলিক প্রসিকিউটর বিশ্বজিৎ দেব।
আইনজীবী বিশ্বজিৎ দেব জানিয়েছেন, গত বছর বাধারঘাট রেল স্টেশনের সামনে প্রাপ্ত খবরের ভিটিতে পুলিশ গাঁজা সহ বিহারের দুই যুবক মিঠুন কুমার সিং ও অমর কুমার সিংকে গ্রেফতার করে।তাদের কাছ থেকে পুলিশ উদ্ধার করে ৩৩কেজি গাঁজা। পুলিশ এনডিপিএস এক্টসে মামলা(৩০/২১) দায়ের করে শুরু করে তদন্ত। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে এনডিপিএস এক্টসের ২০বি(ii)সি ও ২৯ধারায় মামলা লিপিবদ্ধ করে পুলিশ।অনুসন্ধানকারী অফিসার ছিলেন ইন্সপেক্টর মন্টু দাস। তদন্তকারী পুলিশ আধিকারিক মামলার তদন্ত শেষ করে আদালতে চার্জশিট জমা করেন।
পাবলিক প্রসিকিউটর বিশ্বজিৎ দেব সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, আইন অনুযায়ী বিশেষ আদালতে শুরু হয় মামলার শুনানি। মামলার শুনানি কালে আদালত মোট ৮জনের স্বাক্ষ্য বাক্য গ্রহণের পর বিচারক মামলার রায় ঘোষণা করেন।
বিশেষ আদালতের এই মামলার রায় অনেকটা নাজির বিহীন।কারণ রাজ্য জুড়ে চলছে নেশা কারবার।পুলিশ প্রতিদিন গ্রেফতার করেছে নেশা কারবারীদের। কিন্তু বারবার তারা আইনের মারপ্যাঁচ গলে বেরিয়ে যায়। এর পেছনে অবশ্যই দায়ী পুলিশ ও সরকারি আইনজীবীরা। এই মামলায় এটা সম্ভব হয়নি।কারণ তদন্তকারী পুলিশ আধিকারিক ও সরকারি আইনজীবী অপরাধীদের বেঁচে যাওয়ার সুযোগ দেয় নি। এই মামলার অপরাধীদের “কনভিকশন” নতুন দিশা দেখাবে এনডিপিএস এক্টসের অন্যান্য মামলাগুলিকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.