স্পোর্টস ডেস্ক,১৮ডিসেম্বর।।
রাজ্যের দাবার ইতিহাসে নয়া নজীর। এবারই প্রথম ত্রিপুরায় খেলতে আসছেন দেশ ও বিদেশের প্রায় ১৭৫ জন দাবাড়ু। ভারতের প্রতিবেশী দেশ নেপালের দুজন দাবাড়ুও রয়েছেন তালিকায়।বাদবাকিরা সবাই ভিন রাজ্যের।তারা অংশ নেবেন মেট্রিক্স চেস একাডেমি আয়োজিত ‘‌শ্যাম সুন্দর কোং জুয়েলার্স’ প্রথমবর্ষ অপর্ণা দত্ত স্মৃতি প্রাইজমানি রেটিং দাবা প্রতিযোগিতায়। আগামী ২১-‌২৬ ডিসেম্বর হবে আসর। শুক্রবার আগরতলা প্রেস ক্লাবে অনুষ্ঠিত সাংবাদিক সম্মেলনে একথা জানান শ্যাম সুন্দর কোং জুয়েলার্সের কর্ণধার রূপক সাহা। রাজধানীর ‌নেতাজি সুভাষ আঞ্চলিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের যোগা হলে হবে আসর। এবারের আসরে অংশ নেওয়া ২৬৬ জন দাবাড়ুর মধ্যে প্রায় ১৬০ জন রেটেড দাবাড়ু রয়েছে। রূপক সাহা মনে করেন,”এবারের আসর থেকে তরুণ প্রজন্ম উপকৃত হবে। রাজ্যের দাবাড়ুরা ভিন রাজ্যের তরুণ প্রতিভাবান দাবাড়ুদের সঙ্গে খেলে নিজেদের প্রতিভার আরও বিকাশ ঘটানোর সুযোগ পাবে”। দেশ-বিদেশে ও রাজ্য মিলিয়ে এই আসরে মোট অংশ নেবেন ২৬৬ জন দাবাড়ু।তাদের মধ্যে ৫৫ জন মহিলা।এছাড়া বিভিন্ন বয়সভিত্তিক জাতীয় আসরে সাফল্য পাওয়া খুদে দাবাড়ুরাও অংশ নিচ্ছে আসরে। যা কখনও হয়নি ত্রিপুরায়। মহিলা দাবাড়ুদের কথা মাথায় রেখে পুরস্কারের সংখ্যা আরও বাড়ালো মেট্রিক্স চেস একাডেমি।২.‌৫১ লাখ টাকা প্রাইজমানির পাশাপাশি ৫৭টি পুরস্কার ছিলো আগে। এখন তা বেড়ে হলো ৫৯।
শ্যাম সুন্দর কোং জুয়েলার্সের কর্ণধার রূপক সাহা মনে করেন,” ভিনরাজ্য থেকে ১৭৫ জন দাবাড়ু খেলতে আসা যে কোনও রাজ্যের জন্য বিশেষ পাওনা। তিনি বলেন, “মেট্রিক্স চেস একাডেমি এই আসর করে রাজ্যের দাবাড়ুদের দারুন সুযোগ করে দিয়েছে। আগামী দিনে রাজ্যের দাবাড়ুরা তার সুফল পাবেই। তবে এখনও যে সকল দাবাড়ুরা আসরে অংশ নেন নি তারা দ্রুত আসরে অংশ নিয়ে এর সুফল ভোগ করার পরামর্শ দিয়েছেন।”
এবারের আসর সুষ্ঠভাবে সম্পন্ন করতে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিলো রাজ্যের প্রতিষ্ঠিত স্বর্ণ ব্যাবসায়ী প্রতিষ্ঠান শ্যাম সুন্দর কোং জুয়েলার্স। আন্তর্জাতিক মাস্টার দাবাড়ু তথা ভারতীয় দলের নির্বাচক এল আই সি-‌র‌‌ দীনেশ কুমার অংশ নিচ্ছেন এবারের আসরে। এছাড়া মহিলা আন্তর্জাতিক মাস্টার এবং কেন্ডিডেট মাস্টার দাবাড়ুও অংশ গ্রহণ করবেন দাবার এই মেগা আসরে।
ফি ডে মাস্টার তথা ভারতীয় যুব দলের কোচ প্রসেনজিৎ দত্ত বলেন,”ত্রিপুরার দাবাকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া আমার লক্ষ্য। তা মাথায় রেখেই রেটিং দাবার আয়োজন করা হয়েছে। কারণ ভিনরাজ্যে গিয়ে রেটিং দাবায় খেলতে রাজ্যের দাবাড়ুদের বহু টাকা খরচ হয়ে যায়। ফলে অনেকেই বাইরে খেলতে যায় না। এই প্রতিবন্ধকতা দূর করতেই রাজ্যে রেটিং দাবা আসরের উদ্যোগ”। চলতি বছরই অসমে অনুষ্ঠিত হবে গ্র‌্যান্ডমাস্টার দাবার আসর। আগামী বছর ত্রিপুরার এই আসর করার পরিকল্পনা নেওয়া হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন মেট্রিক্স চেস একাডেমির কর্ণধার প্রসেনজিৎ। আগামী ২৬ ডিসেম্বর অপর্ণা দত্ত স্মৃতি প্রাইজমানি রেটিং দাবা প্রতিযোগিতার
পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান।এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন ভারতীয় দাবা ফেডারেশনের সচিব ভরত সিং চৌহান।‌ জানিয়েছে আয়োজক সংস্থা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.