ডেস্ক রিপোর্টার,২০মার্চ।।
অবশেষে সমস্ত জল্পনা-কল্পনার আবাসন ঘটিয়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন টিপিএফ নেত্রী পাতালকন্যা জমতিয়া। রবিবার আগরতলা রবীন্দ্র ভবন প্রাঙ্গনে পাতাল কন্যা আনুষ্ঠানিক ভাবে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন।তাঁর হাতে গেরুয়া পতাকা তুলে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব ও বিজেপি’র প্রদেশ সভাপতি ডা:মানিক সাহা।সঙ্গে ছিলেন উপমুখ্যমন্ত্রী জিষ্ণু দেববর্মন, কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী প্রতিমা ভৌমিক, বিজেপি’র জনজাতি মোর্চার সভাপতি তথা সাংসদ রেবতী ত্রিপুরা।
এদিনের যোগদান সভায় পাতাল কন্যার সহস্রাধিক অনুগামীও শামিল হয়েছে পদ্মবনে। পাতালকন্যা বিজেপিতে যোগ দিয়ে বলেছেন, একটা ইউনিট হিসাবে রাজ্যের উন্নয়নের জন্য বিজেপি নেতৃত্বের সঙ্গে মিলে কাজ করবেন।পাতাল কন্যা বিজেপিতে আনুষ্ঠানিক ভাবে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর পাহাড় রাজনীতিতে আরো একটি উপজাতি ভিত্তিক রাজনৈতিক দলের বিলুপ্তি ঘটেছে।
একসময় পাতাল কন্যা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে বাংলাদেশি বলে আখ্যায়িত করেছিলেন।তাঁর বক্তব্য ছিলো বিজেপি’র গোটা প্রশাসন বাংলাদেশি। এদিন বিজেপিতে যোগদানের পর সাংবাদিকরা পাতাল কন্যাকে এই ইস্যুতে ছেঁকে ধরলে পাতাল সঙ্গে সঙ্গে সরে আসেন তাঁর পূর্বের বক্তব্য থেকে।তিনি বলেন, “মুখ্যমন্ত্রী বাংলাদেশি না স্বদেশী তা বিচার করবে ভারতীয় সংবিধান। এই বিষয়ে তিনি কিছু জানেন না।তবে পাতাল বলেন, ত্রিপুরাতে থাকা অধিকাংশ বাঙালি বাংলাদেশ থেকে এসেছেন ১৯৭১ সনে।মুখ্যমন্ত্রীও এসেছেন।” মুখ্যমন্ত্রী নিজেই নাকি একথা বলেছেন বলে দাবি করেন পাতাল কন্যা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.