আগরতলা,২১মে।।
“রাজ্যে যখন সমস্যার ওপর সমস্যা, তখন রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী, প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী সরকারি পয়সায় হেলিকপ্টারে চড়ে কমলপুর মহকুমায় গিয়ে মহিলাকে সাধ খাওয়াচ্ছেন। একজন শিক্ষামন্ত্রী কী করে এত সময় পান,যে উনি বসে বসে ঘণ্টার পর ঘণ্টা মহিলাদের সাধ খাওয়াচ্ছেন।”—বক্তা প্রদেশ তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি সুবল ভৌমিক।
তৃণমূল নেতা সুবল ভৌমিক বলেন, রাজ্যে এমন একটা পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে, যেখানে প্রতিদিন মানুষের মধ্যে হাহাকার। শিক্ষামন্ত্রীর তুঘলকি কর্মকাণ্ডে, এই রাজ্যের শিক্ষা ব্যবস্থাও লাটে উঠেছে।
“বিভিন্ন ক্ষেত্রে যখন দুর্নীতি চরম আকার নিয়েছে। রেগার কাজ নিয়ে চরম দুর্নীতি চলছে বিভিন্ন দপ্তরে। এই ঝড়ে বৃষ্টিতে রাজ্যের প্রায় ৫০ শতাংশ গ্রামে বিদ্যুৎ পরিষেবা সম্পূর্ণ বন্ধ হয়ে গেছে। সাধারণ মানুষ প্রশাসনকে খুঁজে পাচ্ছেনা, এমন একটা অব্যবস্থার মধ্যে থেকে, কী করে রাজ্যের বিজেপি নেতৃত্ব এই ধরনের কর্ম কাণ্ড করতে পারে! আমরা সত্যিই লজ্জিত।”বলেছেন সুবল ভৌমিক।
বিজেপি’র কাজকর্ম খুবই নিম্নমানের এবং শালীনতাহীন। সাধারণ মানুষ আজ আতঙ্কিত, চিন্তিত, এই ধরনের জন বিরোধী সরকারের অধীনে মানুষের নাভিশ্বাস উঠে যাওয়ার মত অবস্থা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.