ডেস্ক রিপোর্টার,২২নভেম্বর।।
“অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ধমকি-হুমকি ভয় পায় না বিজেপি। রাজনীতি করতে হয় ভালোবাসা দিয়ে,হুমকি দিয়ে নয়।এই দেশে হুমকির রাজনীতি চলে না।”—-বক্তা প্রদেশ বিজেপি’র নেত্রী তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রতিমা ভৌমিক। সোমবার রাজ্য বিজেপি’র সদর দপ্তরে সাংবাদিক বৈঠক করে তৃণমূল নেতা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে সাবধান করে দিয়ে একথা বলেন ত্রিপুরার দিদি প্রতিমা ভৌমিক।
তৃণমূল কংগ্রেসের সর্ব ভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে উদ্দেশ্য করে প্রতিমা ভৌমিক বলেন,” তিনি সোনার চামচ মুখে নিয়ে জন্ম নিয়েছেন।মাঠে-ঘাটে কখনো রাজনীতি করেন নি। শুধু বংশবাদের রাজনীতির কারণে গলা উঁচু করে কথা বলছেন।”
ত্রিপুরার দিদির কথায়, অভিষেক কথায়,কথায় হুমকি দিচ্ছেন। তার কথাবার্তা একজন গুন্ডার মতো।এই কায়দায় ত্রিপুরায় রাজনীতি চলবে না।প্রাতিমা ভৌমিক তাঁর কথার মধ্যে বুঝিয়ে দিয়েছেন,অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় আগুন নিয়ে খেলছেন।
অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে তীব্র ভাষায় আক্রমণ করে ত্রিপুরার দিদি প্রতিমা ভৌমিক স্পস্ট করে বলে দিয়েছেন, “মানুষ যেখানে কষ্ট করে টাকা রোজগার করে,সেখানে রাজনীতিতে এসে অভিষেক হাজার কোটি টাকার সম্পত্তি বানিয়ে নিয়েছেন। লুন্ঠন করেই অভিষেক টাকা বানিয়েছেন।তাই তিনি মাথা ঠিক রাখতে পারছেন না”। কোথায় থেকে এলো অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই টাকা? প্রশ্ন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর।
বাংলার প্রসঙ্গ টেনে প্রতিমা ভৌমিক বলেন, এই বাংলা এক সময় ব্রিটিশের বিরুদ্ধে লড়াই করেছে।কিন্তু আজ গোটা দেশে বাংলাকে কোন জায়গাতে দাঁড় করিয়েছে তৃণমূল? গোটা দেশে বাংলাকে এখন মাথা নত করে থাকতে হয়।
এদিনের সাংবাদিক বৈঠকে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রতিমা ভৌমিকের সঙ্গে সাংবাদিক বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের তথ্যমন্ত্রী সুশান্ত চৌধুরী।মন্ত্রী সুশান্ত চৌধুরীও তীব্র ভাষায় অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় সহ তৃণমূল কংগ্রেসকে তীব্র ভাষায় আক্রমণ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.