তেলিয়ামুড়া ডেস্ক, ২৩ডিসেম্বর।।
বন্য দাঁতাল হাতির তাণ্ডব থেকে পরিত্রান পেতে এবার রাস্তায় নামলো গ্রামবাসীরা।তেলিয়ামুড়া এলাকার বেশ কয়েকটি গ্রামের মানুষ মহকুমা শাসক অফিসের সামনে আসাম আগরতলা জাতীয় সড়ক অবরোধ বসে।ঘটনা বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টা নাগাদ।
জাতীয় সড়ক অবরোধকারীদের দাবী, বনদপ্তর অতিসত্বর এই সমস্যার সমাধান করতে হবে নতুবা অবরোধ চলবে।
প্রসঙ্গত,চলতি মাসের গত ৯ডিসেম্বর থেকে ২৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত মহারানী পুর কপালীটিলা, কর্মকার টিলা, অফিস টিলা, জুম বাড়ি, ভূমিহীন টিলা, উত্তর কৃষ্ণপুর, চাকমা ঘাট, মধ্য কৃষ্ণপুর, চামপ্লাই সহ বিস্তীর্ণ এলাকা জুড়ে বন্য দাঁতাল হাতির তাণ্ডবে অতিষ্ঠ এলাকার মানুষজনরা। কিন্তু বনদপ্তর নির্বিকার।তারা কোনো ভাবেই হাতির আস্ফালন আটকাতে পারেনি।বুধবার রাতেও স্থানীয় ডিএম কলোনীতে হামলা করে হাতির দল।
এই ঘটনার প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার গ্রামবাসীরা সম্মিলিত ভাবে দুইটি স্থানে অবরোধে বসে। অবরোধকারীদের মূল দাবী ঘটনাস্থলে রাজ্যের বনমন্ত্রী এসে প্রতিশ্রুতি দিতে হবে।তবেই অবরোধ প্রত্যাহার করা হবে।নতুবা জারি অবরোধ জারি থাকবে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন তেলিয়ামুড়া মহকুমা পুলিশ আধিকারিক সোনা চরণ জমাতিয়া, তেলিয়ামুড়া ফরেস্ট রেঞ্জ অফিসার সুপ্রিয় দেবনাথ, তেলিয়ামুড়া মহকুমা বন আধিকারিক সাবির কান্তি দাস, মহকুমা প্রশাসনের ডিসিএম প্রদীপ দেববর্মা সহ অন্যান্যরা। প্রশাসনের আধিকারিকরা প্রাথমিক ভাবে দফায় দফায় আলোচনা করেও ব্যর্থ হয় আন্দোলনকারীদের বুঝাতে।জাতীয় সড়ক অবরোধের ফলে রাস্তার দুইদিকেই প্রচুর যান বহন আটকে যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.