ডেস্ক রিপোর্টার,২৪ সেপ্টেম্বর।।

ত্রিপুরায় দলিত সমাজের প্রতি নৃশংসতা নেই বললেই চলে। রাজ্য সরকারের প্রশংসনীয় কাজের ফলেই এটা সম্ভব হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেবের নেতৃত্বে রাজ্য সরকার প্রতিটি মানুষের সামগ্রিক বিকাশে আন্তরিকতার সাথে কাজ করছে। একদিনের রাজ্য সফরে এসে সরকারি অতিথিশালায় কেন্দ্রীয় সামাজিক ন্যায় এবং ক্ষমতায়ন মন্ত্রকের প্রতিমন্ত্রী রামদাস আটোয়াল এক সাংবাদিক সম্মেলনে একথা বলেন।

সাংবাদিক বৈঠকে কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী জানান, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে কেন্দ্রীয় সরকারের প্রচেষ্টায় এখন পর্যন্ত দেশের ৮০ কোটির অধিক মানুষের কোভিড ১৯ টিকাকরণ করা হয়েছে। বাকি নাগরিকদেরও আগামী ৩-৪ মাসের মধ্যে টিকাকরণ সম্পন্ন হয়ে যাবে। কেন্দ্রীয় সরকার হিন্দু মুসলমান, দলিত সহ দেশের সকল সম্প্রদায়ের মানুষের সার্বিক বিকাশে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক পরিকল্পনা বাস্তবায়িত করছে। কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী
রামদাস আটোয়ালের বক্তব্য,
২০২০-২১ অর্থবছরে কেন্দ্রীয় সামাজিক ন্যায় এবং ক্ষমতায়ন মন্ত্রকের বাজেট ১ লক্ষ ২৯ হাজার ২৩৯ কোটি টাকা। পূর্বতন সবগুলি সরকারের থেকে এই বাজেট অনেক বেশি। এর থেকেই অনুমান করা যায় বর্তমান কেন্দ্রীয় সরকার সবকা সাথ, সবকা বিকাশ, সবকা বিশ্বাস এই ভাবধারাতেই কাজ করে চলেছে।
কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী রামদাস আটোয়াল পরিসংখ্যান তুলে ধরে বলেন, রাজ্যে প্রধানমন্ত্রী জনধন যোজনায় ২০২১-র সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ৮ লক্ষ ৩৬ হাজার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট খোলা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী উজ্জ্বলা যোজনায় ২০২০-র মার্চ পর্যন্ত ২ লক্ষ ৬৭ হাজার গ্যাস সংযোগ দেওয়া হয়েছে। এখন পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা (গ্রামীণ)-এ ৫৮ হাজার ৫০০টি এবং প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা (শহর)-এ ৫৩ হাজার গৃহ নির্মাণ করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী জন আরোগ্য যোজনায় রাজ্যে এখন পর্যন্ত ১২ লক্ষ ৬০ হাজার মানুষ উপকৃত হয়েছেন। তিনি সমাজের বিভিন্ন স্তরের লোকদের সহায়তার জন্য রাজ্যে আরও বেশি করে আবাসিক বিদ্যালয়, অনাথালয় নির্মাণ করার প্রয়োজন রয়েছে বলে সাংবাদিক সম্মেলনে উল্লেখ করেন।এদিন রামদাস আটোয়াল মুক্তধারা অডিটোরিয়ামে একটি সামাজিক সম্মেলনেও অংশগ্রহণ করেন। এখানে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর সম্মানে একটি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানেরও আয়োজন করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.