* নয়াদিল্লি থেকে দীপক শর্মা *
————————————-
বুলেটের শব্দে কেঁপে উঠলো দেশের রাজধানীর বিচার ব্যবস্থার গর্ভগৃহ।ঘটনা দিল্লির রোহিনি আদালত চত্বরে। হিন্দি সিনেমার কায়দায় দুষ্কৃতিরা আইনজীবী সেজে চলে আসে কোর্ট চত্বরে।তাদের এলোপাথাড়ি গুলিতে গ্যাং স্টার জিতেন্দ্র গোগি সহ ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে।খবর লেখা পর্যন্ত এই তথ্য নিশ্চিত করেছে দিল্লি পুলিশ। দুস্কৃতিদের গুলিতে আদালতের কক্ষেই মৃত্যু হয়েছে তিনজনের।তারা গ্যাং স্টার জিতেন্দ্র গোগির সহযোগী।গুলিতে মৃত্যু হাওয়া বাদবাকি দুইজনকে সনাক্ত করতে পারেনি পুলিশ। দিল্লি পুলিশের প্রাথমিক ধারণা দুস্কৃতিরা জিতেন্দ্র গোগির প্রতিপক্ষ গোষ্ঠি।
দিল্লি পুলিশ জানিয়েছে সম্প্রতি গ্যাং স্টার জিতেন্দ্র গোগিকে গুজরাট থেকে গ্রেফতার করা হয়েছিলো। গ্রেফতারের পর তাকে নিয়ে আসা হয় দিল্লিতে।শুক্রবার জিতেন্দ্রকে পুলিশ সোপর্দ করে স্থানীয় রোহিনী আদালতে।এদিন আইনজীবীদের ছদ্মবেশে দুস্কৃতিরা পুলিশের চোখে ফাঁকি দিয়ে প্রবেশ করে আদালতের কক্ষে।মামলার শুনানি চলা কালে দুস্কৃতিরা জিতেন্দ্র গোগিকে লক্ষ্য করে এলোপাথাড়ি গুলি ছুটতে থাকে।দুস্কৃতিদের বুলেটের আঘাতে জিতেন্দ্র গোগি সহ তার তিন সহযোগী আদালতের মেঝেতে লুটিয়ে পড়ে।সঙ্গে আরও আরো দুইজন। ঘটনাস্থলেই তাদের মৃত্যু হয়।আদালতের কক্ষে গুলি চালিয়ে দুস্কৃতিরা মুহূর্তেই পালিয়ে যায়। এই ঘটনায় হতভম্ব হয়ে যায় আদালত চত্বরে উপস্থিত পুলিশ। সঙ্গে সঙ্গেই দিল্লি পুলিশ দুস্কৃতিদের গ্রেফতারের জন্য জাল বিস্তার করে।গোটা দিল্লিতে জারি করে দেওয়া হয় “লাল সতর্কতা”। দুস্কৃতিদের গ্রেফতার করতে দেশের রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে চলছে যানবাহন তল্লাশি। এই ঘটনার পর গোটা আদালত চত্বর ঘিরে ফেলে পুলিশ।ছুটে আসে দিল্লি পুলিশের ফরেন্সিক টিম।রক্তাক্ত অবস্থায় জিতেন্দ্র গোগি সহ গুলিবিদ্ধ ছয়জনকে নিয়ে যাওয়া হয় হাসপাতালে।চিকিৎসকরা তাদের মৃত বলে ঘোষণা করেন। আরো কয়েকজনের শরীরে বুলেটের আঘাত লেগেছে।তাদেরও চিকিৎসা চলছে হাসপাতালে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.