ডেস্ক রিপোর্টার,২৫জানুয়ারি।।
” ত্রিপুরায় জঙ্গিদের জন্মদাতা বামেরা।বামেদের হাত ধরেই রাজ্যে মাথা গজিয়ে উঠেছিল রক্ত পিপাসু জঙ্গিরা।রাজ্যে রাজনৈতিক হিংসার স্রষ্টাও কমিউনিস্টরাই।”—বক্তা রাজ্য বিজেপি’র সহ সভাপতি অশোক সিনহা। মঙ্গলবার বিজেপি’র সদর দপ্তরে সাংবাদিক বৈঠক করে একথা বলেন তিনি।
সম্প্রতি রাজ্যের বিরোধী দল নেতা মানিক সরকার রাজ্য সরকারের নানান বিষয় নিয়ে সমালোচনা করেন। জঙ্গিপনা থেকে শুরু করে রাজনৈতিক হিংসা। বেকারদের কর্মসংস্থান থেকে করোনা পরিস্থিতি সব নিয়েই রাজ্য সরকারকে কাঠ গড়ায় তুলেছিলেন মানিক সরকার।
বিরোধী দল নেতা মানিক সরকারের সমালোচনার সমস্ত জবাব দিয়েছে শাসক দল বিজেপি। রাজ্য বিজেপি’র সদর দপ্তরে সাংবাদিক বৈঠক করে দলের সহ সভাপতি অশোক সিনহা বলেন, “মানিক সরকারের মুখে বড় কথা মানাই না।কারণ বাম জামানাতেই রাজ্যে জন্ম নিয়েছিলো বৈরীরা।বামেরা ক্ষমতায় আসার পরই ১৯৮০-তে রাজ্যে ঘটে গিয়েছিলো দাঙ্গা। বামেদের হাত ধরেই রাজ্য রাজনীতিতে জন্ম নিয়েছিল হিংসার।”
প্রসঙ্গক্রমে অশোক সিনহা বলেন,”জঙ্গি নেতা তথা এটিটিএফের প্রাক্তন সভাপতি ললিত দেববর্মা নিজের মুখেই বলেছিলেন তিনি বামেদের ক্ষমতায় আনার জন্য বৈরী জীবন বেছে নিয়েছিলেন।”অশোক সিনহার কথায়, ললিত দেববর্মার কথা থেকেই স্পস্ট কারা জঙ্গিদের জন্ম দিয়েছে এই রাজ্যে।
বেকারদের চাকরির প্রসঙ্গ টেনে অশোক সিনহা বলেছেন, বিজেপি বেকারদের নিয়ে ছেলে খেলা করছে না। ছেলে খেলা করেছেন মানিক সরকার। মানিক সরকারের কারণেই ১০৩২৩শিক্ষকদের এই অবস্থা।
অশোক সিনহার দাবি, মানিক সরকার করোনা সংক্রান্ত বিষয় নিয়েও মানুষকে ভুল বুঝানোর চেষ্টা করছেন।এবং করছেন ভুল বিশ্লেষণ। সর্বোপরি প্রদেশ বিজেপি’র সহ সভাপতি অশোক সিনহা রন্ধ্রে রন্ধ্রে বিঁধেন মানিক সরকারকে। এদিনের সাংবাদিক বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন প্রদেশ বিজেপি’র মুখপাত্র নবেন্দু ভট্টাচার্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published.