মোহনপুর ডেস্ক, ২৮মে।।
তিপ্রামথা ও আইপিএফটি’র খাস তালুক সিমানাতে বিজেপি’র দফাওয়াড়ি হানা। পদ্ম বনের দমকা হাওয়ায় উড়ে গেছে ট্যাক্কাল এবং আনারস ক্ষেতে ধুলো। মাথায় হাত এনসি-প্রদ্যুতের।
শনিবার সিমনা বিধানসভায় পঞ্চবটি স্কুল মাঠে অনুষ্ঠিত জনসভায় ৬২০ পরিবারের ১৯২৬জন ভোটার যোগ দিয়েছে বিজেপি’তে।তাদের হাতে পতাকা তুলে দিয়ে দলে বরণ করে নেন সাংসদ রেবতী ত্রিপুরা, মন্ত্রী রাতনলাল নাথ, মন্ত্রী রামপদ জমাতিয়া ও রাজ্য বিজেপি’র সাধারণ সম্পাদিকা পাপিয়া দত্ত। দলত্যাগীরা সবাই আইপিএফটি ও তিপ্রামথার কর্মী-সমর্থক। মূলত স্থানীয় জনজাতি নেতা শ্রীমঙ্গল দেববর্মার নেতৃত্বে ভোটাররা যোগ দিয়েছেন বিজেপিতে।
এদিনের জনসভায় প্রত্যেক বক্তাই তাদের ভাষণে রাজ্য ও কেন্দ্রের ডাবল ইঞ্জিন সরকারের সফলতার কথা তুলে ধরেন। সাংসদ রেবতী ত্রিপুরা তাঁর ভাষণে স্পস্ট ভাবে জানিয়ে দিয়েছেন, ২৩-র বিধানসভা নির্বাচনে তিপ্রামথা কোনো ফ্যাক্টর হবে না। পাহাড়ে যথেষ্ট শক্তিশালী বিজেপি।
রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী রাতনলাল নাথ দৃঢ়তার সঙ্গে বলেন, ২৩-র নির্বাচনে রাজ্যে পুনরায় সরকার গঠন করবে বিজেপি। মন্ত্রিসভার নতুন সদস্য রামপদ জমাতিয়াও তাঁর ভাষণে তীব্র ভাষায় আক্রমণ করেন তিপ্রামথাকে। তাদের সুরেই কথা বলেছেন রাজ্য বিজেপি,’র সাধারণ সম্পাদিকা পাপিয়া দত্ত।

Leave a Reply

Your email address will not be published.