ধর্মনগর ডেস্ক, ২৮আগস্ট।।
         একই দিনে দুই পৃথক জায়গায়  চুরাইবাড়ি থানার পুলিশ ও চুরাইবাড়িস্থিত পুলিশ ওয়াচ পোষ্টের আসাম পুলিশের হাতে ধরা পরলো দুটি গাঁজা বোঝাই লরি। পৃথক পৃথক দুটি তল্লাশি অভিযান সংঘটিত হয় এই দুই থানাতে। শনিবার অনুমানিক দুপুর ২ টা নাগাদ একই সঙ্গে দুটি থানাতে দুটি লরি থেকে প্রায় এক টনের উপর গাঁজা উদ্ধার করে অসম ও ত্রিপুরা পুলিশ। প্রথমে অসম-  ত্রিপুরা সীমান্তে চুড়াইবাড়িস্থিত পুলিশ ওয়াচ পোষ্টের সামনে নাকা চেকিং চলাকালীন সময় আসাম পুলিশ  PB05AN-5971 নম্বরের গাড়িকে আটক করে। এবং তল্লাশি করতেই গাড়িতে থাকা ফলের ট্রে থেকে ৩৫টি প্যাকেটে কুড়ি কেজি করে মোট সাতশো কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃত গাঁজার বাজার মূল্য প্রায় সত্তর লক্ষ টাকা বলে জানান ইনচার্জ নিরঞ্জন দাস । এদিকে গাড়ির চালক হেমরাজ শিং(২৭) ও সহচালক সন্তোষ কুমারকে (শিব শংকর)  (২২) আটক করে এনডিপিএস আইনে মামলা রুজু করে তাদের গ্রেফতার করে তদন্ত অব্যাহত রয়েছে আসাম পুলিশ । গাড়ির  চালকের বাড়ি উত্তরপ্রদেশে এবং সহ চালকের বাড়ি রাজস্থানে। চালক জানায়, সে এক লক্ষ টাকার বিনিময়ে আগরতলা থেকে এই গাঁজা গুলি শিলংয়ের উদ্দেশ্যে নিয়ে যাচ্ছিল।
অপরদিকে একইভাবে  রাজ্যের  চুরাইবাড়ি থানার পুলিশ  থানার সামনে নাকা চেকিং চলাকালীন সময় HP31C-5226 নম্বরের রাবার বোঝাই লরি আটক করে। রাবার শিডের ভেতরে থাকা প্রায় ৪০০ কেজি গাঁজা উদ্ধার করে পুলিশ । একইভাবে গাঁজা বাজার মূল্য চল্লিশ লক্ষ টাকা বলে জানান মহকুমা পুলিশ আধিকারিক সৌম্য দেবর্বমা । এক্ষেত্রেও গাড়ির চালক শ্রীধর শ্রীকান্ত (৩৫) ও সহচালক অনিল কুমারকে (৪৩) আটক করা হয়েছে। ধৃত দুজনের বাড়ি হিমাচল প্রদেশে। তাদের বিরুদ্ধেও এনডিপিএস আইনে মামলা রুজু করে তদন্ত  পুলিশ

Leave a Reply

Your email address will not be published.