তেলিয়ামুড়া ডেস্ক,২৮ নভেম্বর।।
সমস্ত জল্পনা-কল্পনা অবসান ঘটিয়ে পুর ভোটে তেলিয়ামুড়া পুর পরিষদ দখল করলো শাসক দল বিজেপি।রবিবার সকাল আটটা থেকে শুরু ভোট গণনা শুরু হয় তেলিয়ামুড়া মহকুমা শাসকের কার্যালয়ে।গণনা হয় মোট সাতটি টেবিলের মধ্যে।তেলিয়ামুড়া মহকুমা শাসক তথা রিটার্নিং অফিসার ১৫টি ওয়ার্ডের বিজয়ী প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করেন।
সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড গুলির মধ্যে এক নম্বর ওয়ার্ডে তৃণমূল এবং বিজেপির মধ্যে জবরদস্ত লড়াই হয়। যদিও শেষ পর্যন্ত বিজেপির প্রার্থী অপর্ণা শীলের কাছে পরাজিত হন তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী। বিজেপি’র প্রার্থী অপর্ণা শীল পেয়েছেন ৫৯৪টি ভোট। অপরদিকে তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী পেয়েছেন ৩০৮টি ভোট। বিজেপি প্রার্থী অপর্ণা শীল ২৯৬ ভোটের ব্যবধানে জয়ী হয়েছেন। তেলিয়ামুড়া পুর পরিষদের দুই নম্বর ওয়ার্ডের বিজেপির প্রার্থী মধুসূদন রায় পেয়েছে ৫০৯টি ভোট। অপরদিকে তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী পেয়েছে ২৭৯ টি ভোট। এই ওয়ার্ডে বিজেপির প্রার্থী মধুসূদন রায় ৩৩০ ভোটের ব্যবধানে জয়ী হয়েছে।
তিন নম্বর ওয়ার্ডের বিজেপির মনোনীত প্রার্থী বরুনা ঋষি দাস পেয়েছে ৩৫৯ ভোট। তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী পেয়েছে ২৮২টি ভোট।বিজেপি প্রার্থী বরুনা ঋষি দাস ৭৭ টি ভোটের ব্যবধানে জয়ী হয়েছে। পুর পরিষদের ৪নম্বর ওয়ার্ডের মোট ভোটার সংখ্যা ৯৩৫। এই ওয়ার্ডে বিজেপির মনোনীত প্রার্থী মালাশ্রী সাহা পাল পেয়েছেন ৫৪৯টি ভোট। তৃণমূল কংগ্রেস পেয়েছে ২২৩টি ভোট। ৩১৬ ভোটের ব্যবধানে বিজেবি প্রার্থী জয়ী হয়েছে। তেলিয়ামুড়া। ৫ নম্বর ওয়ার্ডের বিজেপি প্রার্থীর বিমল রক্ষিত জয়ের ধারা অব্যাহত রাখেন।তিনি পেয়েছেন ৬৭৩ ভোট। এই কেন্দ্রের তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী পেয়েছেন ২২১টি ভোট। ৩৫২ভোটের ব্যবধানে বিজেপির মনোনীত প্রার্থী বিমল রক্ষিত জয়ী হয়েছে। ৬নম্বর ওয়ার্ডের বিজেপির প্রার্থী বাবলি মজুমদার রায় পেয়েছে ৫৩৯ ভোট।এই ওয়ার্ডের তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী পেয়েছে ২৫৭টি ভোট।ফলে এই ওয়ার্ডের বিজেপির প্রার্থী ২৮২ ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হয়েছে। সাত নম্বর ওয়ার্ডের বিজেপি প্রার্থী রূপক সরকার পেয়েছেন ৩৬৩ ভোট এবং তৃণমূল প্রার্থী পেয়েছে ২৫৪ভোট। বিজেপি প্রার্থী রূপক সরকার ২০৯ ভোটের ব্যবধানে জয়ী হয়েছেন। তেলিয়ামুড়া পুর পরিষদের আট নম্বর ওয়ার্ডে বিজেপি প্রার্থী রিংকু ভৌমিক দেব পেয়েছেন ৬৭৯ ভোট ।অপরদিকে সিপিএমের মনোনীত প্রার্থী পেয়েছে ৩১৬ ভোট। রিঙ্কু ভৌমিক দেব সিপিএমের প্রার্থীকে 363 ভোটের ব্যবধানে হারিয়ে বিজয়ী হয়েছেন।৯নম্বর ওয়ার্ডের বিজেপির প্রার্থী পেয়েছে ৬২০ ভোট এবং সিপিআইএম মনোনীত প্রার্থী পেয়েছে ৩৩৬ ভোট।বিজেপির প্রার্থী সিপিএম প্রার্থীকে ২৮৪ ভোটের ব্যবধানে হারিয়ে বিজয়ী হয়েছেন। পুর পরিষদের ১০ নম্বর ওয়ার্ডের বিজেপির প্রার্থী নিশা রানী সূত্রধর পেয়েছে ২৬০ভোট এবং তৃণমূল কংগ্রেসের মনোনীত প্রার্থী পেয়েছে ২৫২ ভোট। মাত্র ৮ভোটের ব্যবধানে নিশা রানী সূত্রধর বিজয়ী হয়েছেন।
তেলিয়ামুড়া পুর পরিষদের ১১নম্বর ওয়ার্ডের বিজেপি প্রার্থী পেয়েছে ৪৬০ ভোট। এবং তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী পেয়েছে ১০৭ ভোট ।তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থীকে ৩৫৩ ভোটের ব্যবধানে হারিয়ে বিজেপি প্রার্থী জয় ছিনিয়ে নিয়েছে।
১২ নম্বর ওয়ার্ডের বিজেপির প্রার্থী পেয়েছে ৪০৫ ভোট এবং তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী পেয়েছে ৩২৫ ভোট। তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী পরাজিত হন মাত্র ৮০ ভোটে। ১৩ নম্বর ওয়ার্ডের বিজেপি প্রার্থী পেয়েছেন ৩৯৩ ভোট।এবং তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী পেয়েছে ৩৩৮ ভোট। তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থীকে 55 ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করেন
বিজেপির প্রার্থী।
১৪ নম্বর ওয়ার্ডের বিজেপির প্রার্থী পেয়েছেন ৩২৭ভোট এবং তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী পেয়েছে ২৮৭ ভোট।তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থীকে ৪০ ভোটের ব্যবধানে হারিয়ে বিজয়ী হয়েছেন বিজেপির প্রার্থী। তেলিয়ামুড়া পুর পরিষদের ১৫নম্বর ওয়ার্ডটি রাজনৈতিক ভাবে গুরুত্বপূর্ণ।এই ওয়ার্ডেও বিজেপি তাদের জয় ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছে।এই ওয়ার্ডে বিজেপির প্রার্থী নীতিন সাহা পেয়েছে ৫৮০ভোট।এবং তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী অশোক দাস গুপ্ত পেয়েছেন ৩৬৪ ভোট। বিজেপি’র প্রার্থী নীতিন কুমার সাহা তৃণমূল কংগ্রেসের অশোক দাশগুপ্তকে ২১৬ ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করেন।
তেলিয়ামুড়া পুর পরিষদের ফলাফল ঘোষণার পর স্থানীয় বিধায়িকা কল্যাণী রায় বলেন, এই জয় তিনি তেলিয়ামুড়াবাসীকে উৎসর্গ করেছেন।তিনি তেলিয়ামুড়ার মানুষের প্রতি কৃতজ্ঞ। বিধায়িকা কল্যানী রায় বলেন,তিনি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর কথা রাখতে পেরেছেন।মুখ্যমন্ত্রী বলেছিলেন,বিরোধীরা যেন একটিও আসন না পায়। মুখ্যমন্ত্রীর এই কথা রাখতে পেরে আপ্লুত খোদ বিধায়িকা কল্যাণী রায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.