আগরতলা,৩০ এপ্রিল।।
জিরানীয়ার বীরেন্দ্রনগর দ্বাদশ শ্রেণী বিদ্যালয়কে বিদ্যাজ্যোতি প্রকল্পের অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। এ উপলক্ষে শুক্রবার আয়োজিত অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করে তথ্য ও সংস্কৃতি মন্ত্রী সুশান্ত চৌধুরী বলেন, রাজ্যে গুণগত শিক্ষার সম্প্রসারণে বিদ্যাজ্যোতি প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। এরফলে ছাত্রছাত্রীদের গুণগত শিক্ষার মান বৃদ্ধি পাবে। রাজ্যের ছাত্রছাত্রীরাও জাতীয় স্তরের যে কোনও প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় সফল হতে সক্ষম হবে। তিনি বলেন, শিক্ষা দপ্তর প্রাথমিকভাবে এই প্রকল্পে ১২৫টি বিদ্যালয়কে সিবিএসইতে রূপান্তরিত করবে।

এই বিদ্যালয়গুলির শিক্ষাগত পরিকাঠামো উন্নয়নে ব্যয় হবে ৫০০ কোটি টাকা। প্রত্যেকটি মহকুমার সেরা স্কুলগুলিকে এই প্রকল্পের আওতায় আনা হচ্ছে। গরিব অংশের মেধাবী ছাত্রছাত্রীরা যাতে জাতীয়মানের শিক্ষা লাভ করতে পারে তারজন্য এই প্রকল্প শুরু করা হয়েছে বলে তথ্য ও সংস্কৃতি মন্ত্রী অভিমত প্রকাশ করেন।

তথ্য ও সংস্কৃতিমন্ত্রী মজলিশপুর বিধানসভা কেন্দ্রে বীরেন্দ্রনগর স্বাদশ শ্রেণী বিদ্যালয় ও সুকান্ত একাডেমিকে এই প্রকল্পের আওতায় আনার জন্য শিক্ষামন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান। বীরেন্দ্রনগর স্কুলের প্রসঙ্গে তথ্য ও সংস্কৃতি মন্ত্রী বলেন, এই বিদ্যালয়ের একটি ঐতিহ্য রয়েছে। সমাজের বিভিন্ন অংশে এই বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীরা সম্মানের সঙ্গে কাজ করছে। অনুষ্ঠানে তিনি বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণীতে ভর্তি হওয়া কিছু ছাত্রছাত্রীদের শিক্ষা সামগ্রী তুলে দেন। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয়ের সহকারি প্রধান শিক্ষক দেবাশিস পাল। অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জিরানীয়া নগর পঞ্চায়েতের চেয়ারপার্সন রতন কুমার দাস, জিরানীয়া পঞ্চায়েত সমিতির ভাইস চেয়ারম্যান প্রীতম দেবনাথ, মহকুমা শাসক জীবন কৃষ্ণ আচার্য, খুমুলুঙ ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ প্রণজিৎ বর্ষন, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শঙ্কর সাহা, সমাজসেবী গৌরাঙ্গ ভৌমিক প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.